কালভার্ট বন্ধ করে গোয়ালঘর উচ্ছেদ করল মেয়র

আসিফুল ইসলামঃ

কালভার্ট বন্ধ করে গোয়ালঘর নির্মাণ করায় তা উচ্ছেদ করেছেন মিরসরাই উপজেলার বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন। মিরসরাইয়ের বাণিজ্যিক রাজধানীখ্যাত প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা বারইয়ারহাট। এই পৌরসভার খুবই গুরুত্বপূর্ণ সড়ক আজিজ উল্ল্যাহ সড়ক। এই সড়কের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম জামালপুর গ্রামের শেখ আলী বাড়ীর আমিন উদ্দিন, জাফর আহম্মদ ও আবু তাহেরের পরিবার পৌরসভার ড্রেনের জায়গা দখল করে বাড়ীর সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেছেন। যাতে করে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া আমিন উদ্দিন অন্য একটি ড্রেনের পানি চলাচল বন্ধসহ পানি চলাচলের কালভার্ট পুরোপুরিভাবে বন্ধ করে দিয়ে সেখানে গোয়াল ঘর নির্মাণ করেছেন। ওই গোয়াল ঘরের মলমূত্র আজিজ উল্ল্যাহ সড়ক দিয়ে প্রবাহিত হয়ে আসছে দীর্ঘদিন যাবত। এতে করে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে কালভার্ট ও ড্রেনের জায়গা দখল করার কারণে। শনিবার (৩ জুলাই) স্থানীয়রা বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকনের কাছে এবিষয়ে অভিযোগ জানালে তিনি বিকেলে সেখানে উচ্ছেদ অভিযান চালান। এসময় উপস্থিত ছিলেন বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এমএ খালেকসহ পৌরসভার কর্মকর্তারা।স্থানীয় বাসিন্দা সাদেক হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন যাবত আমরা আজিজ উল্ল্যাহ সড়কে দুর্ভোগ পোহাচ্ছি। গোয়াল ঘরের ময়লা আবর্জনা সড়ক দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার প্রতিবাদ জানালে ওই বাড়ির লোকজন গালাগালি করার কারণে ভয়ে কেউ মুখ খুলতেন না। মেয়র রেজাউল করিম খোকনের সাহসী উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। স্থানীয় বাসিন্দা রবিন উদ্দিন হৃদয় বলেন, স্থানীয়রা ওই গোয়াল ঘরের মলমূত্র সড়ক দিয়ে প্রবাহিত করার বিষয়ে একাধিকবার বাঁধা দিলে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ইতিপূর্বে যিনি মেয়র ছিলেন তাকেও এই বিষয়ে অবহিত করা হয়েছিল কিন্তু তিনি এই বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেননি। অবশেষে বারইয়ারহাট পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র রেজাউল করিম খোকনকে জানালে তিনি দ্রæত পদক্ষেপ নিয়ে মধ্যম জামালপুর গ্রামের মানুষকে দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ থেকে মুক্ত করলেন।স্থানীয় বাসিন্দা আনোয়ার মিস্ত্রি বলেন, গোয়াল ঘরের মলমূত্র সড়ক দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার কারণে কলিজান বিবি খোন্দকার জামে মসজিদে যেতে আমাদের খুব কষ্ট হতো, শুধু ভয়ে থাকতাম কখন নাপাক মলমূত্র কাপড়চোপড়ে লেগে যায়; এখন সেই কষ্ট লাঘব হওয়ায় আমরা খুশি। বারইয়ারহাট পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এমএ খালেক বলেন, বারইয়ারহাট পৌরসভার অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ সড়ক আজিজ উল্ল্যাহ সড়ক। এই সড়কের শেখ আলী বাড়ির আমিন উদ্দিন পানি চলাচলের কালভার্ট বন্ধ করে গোয়াল ঘর নির্মাণ করায় দুর্ভোগে পড়েছিল এতদ অঞ্চলের মানুষ। দুই কিলোমিটারের এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শতশত মানুষ চলাচল করে।বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন জানান, সরকারি ড্রেনের জায়গা দখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণের ফলে ওই এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে এবং আজিজ উল্ল্যাহ সড়কের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সড়কটি। এদিকে আমিন উদ্দিন একটি ড্রেন বন্ধ করে এবং পানি চলাচলের একটি কালভার্ট পুরোপুরিভাবে বন্ধ করে গোয়াল ঘর নির্মাণ করায় স্থানীয়রা দীর্ঘদিন ধরে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। শনিবার সকালে আমাকে স্থানীয় জনসাধারণ অভিযোগ জানালে আমি স্বশরীরে থেকে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে পৌরসভার সম্পদ উদ্ধার করি। ভবিষ্যতে কেউ পৌরসভার নীতিমালা অনুসরণ না করে পৌর এলাকায় গৃহ নির্মাণ করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *