খুলনায় ব্যবসায়ীর ছিনতাই হওয়া অর্থ উদ্ধার,পিরোজপুরের একজনসহ গ্রেফতার ৪

খুলনা মহানগরীর ইকবালনগর এলাকা থেকে ছিনতাই হওয়া ব্যবসায়ীর অর্থ উদ্ধার ও ছিনতাইকারীদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে দ্রুততম পুলিশ এ ছিনতাই রহস্যের জট খুলতে সক্ষম হয়েছে।

এ মামলার ২নং আসামি রোববার (০৯ মে) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। গ্রেফতার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার তুষখালিয়া গ্রামের আব্দুল ছমেদ খলিফার ছেলে নগরীর বাগমারা গফফারের মোড়ের বাসিন্দা বাবুল খলিফা (৩২), কয়রা উপজেলার হরিনগর এলাকার মৃত আবদুল হাকিম সানার ছেলে নগরীর জাহিদুর রহমান সড়কের বাসিন্দা মন্টু সানা (৪০), নগরীর বাগমারা মেইন রোডের আইয়ুব আলীর ছেলে মিন্টু আলী (৩৫) ও রিয়া বাজার এলাকার মো. নজরুল ইসলাম শেখের ছেলে মো. ইমরান শেখ (২৪)।

কেএমপি’র মিডিয়া সেলের সূত্রমতে, গতকাল শনিবার বিকেলে অজ্ঞাতনামা আসামিদেরকে শনাক্ত করে বাবুল খলিফাকে বাগেরহাটের দশআনি এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। একই সাথে লবনচরা থানাধীন ঠিকারাবন্দ এলাকা থেকে মন্টু সানাকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনার সঙ্গে তাদের জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে। পরে বাবলু খলিফার কাছ থেকে ছিনতাইকৃত নগদ ৮৯ হাজার উদ্ধার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যমতে, রবিবার ভোর রাতে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে বেনাপোল পোর্ট থানা এলাকা থেকে মিন্টু আলীকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে ৩১০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হরিণটানা মেইন রোড থেকে ইমরান শেখকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত এফজেড মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়। গতকাল মামলার ২নং আসামি মন্টু সানাকে আদালতে সোপর্দ করলে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। আর বাবলু খলিফা, মিন্টু আলী এবং মো. ইমরান শেখকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনার সঙ্গে তাদের জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে। পরে বাবলু খলিফার কাছ থেকে ছিনতাইকৃত নগদ ৮৯ হাজার উদ্ধার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যমতে, রবিবার ভোর রাতে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে বেনাপোল পোর্ট থানা এলাকা থেকে মিন্টু আলীকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে ৩১০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হরিণটানা মেইন রোড থেকে ইমরান শেখকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত এফজেড মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়। গতকাল মামলার ২নং আসামি মন্টু সানাকে আদালতে সোপর্দ করলে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। আর বাবলু খলিফা, মিন্টু আলী এবং মো. ইমরান শেখকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ।

তথ্য কৃতজ্ঞতা

জাগোনিউজ২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *