পিরোজপুরে করোনা সংক্রান্ত কেনাকাটার দায়িত্বে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মিনা মাসুদুজ্জামান

করোনা সংক্রান্ত সব ধরনের কেনাকাটা, নির্মাণ, মেরামত ও যন্ত্রপাতি ব্যবহারের দায়িত্ব পেলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ৪৬ কর্মকর্তা। গতকাল মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আনজুমান আরা স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

  • পিরোজপুর ও রাজশাহী জেলার করোনা সংক্রান্ত কেনাকাটার দায়িত্বে কর্মকর্তা মিনা মাসুদ উজ্জামান খান


আদেশে কর্মকর্তাদের কর্মপরিধি প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, করোনা মোকাবেলায় সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে কোন সমস্যা দেখা দিলে তাৎক্ষণিক সমাধানের উদ্যোগ নেবেন দায়িত্বপ্রাপ্তরা। স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের চলমান মেরামত, ক্রয়, নির্মাণ কার্যক্রম পরিবীক্ষণ করবেন। হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতা, যন্ত্রপাতি ব্যবহার, আউট সোর্স জনবল, খাদ্য ও ঔষধ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম দেখবেন। এসব কর্মকর্তা তাদের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে কমপক্ষে ১টি প্রতিমাসে পরিদর্শন করবেন। পরিদর্শন করতে না পারলে যোগাযোগের মাধ্যমে অর্পিত দায়িত্ব সম্পাদন করবেন। অতিরিক্ত সচিব ও যুগ্মসচিব পর্যায়ের কর্মকর্তারা নিজ এলাকার বাইরেও অন্য জেলা পরিদর্শন করতে পারবেন। উপসচিবরা মেডিকেল কলেজে যেতে পারবেন না। তবে জেলার অন্যসব চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারবেন। পরিদর্শনের ৭ দিনের মধ্যে বাস্তবায়নযোগ্য সুপারিশ প্রতিবেদন আকারে দাখিল করতে হবে।
তালিকায় ঢাকা মহানগরে দায়িত্ব পেয়েছেন অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগম, চট্টগ্রাম বিভাগ মোহাম্মদ শাহদাত হোসেন। ঢাকা অঞ্চল-১ (ঢাকা, নরসিংদী, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, নারায়নগঞ্জ) নাজমুল হক খান, রাজশাহী বিভাগ মো. সাইদুর রহমান, রংপুর বিভাগ বেগম রাশেদা আক্তার, সিলেট বিভাগ মো. মুহিবুর রহমান, বরিশাল বিভাগ মো. এনামুল হক, ময়মনসিংহ বিভাগ মো. তাহমিদুল ইসলাম, ঢাকা অঞ্চল-২ (মুন্সিগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, শরীয়তপুর ও রাজবাড়ী) মো. হেলাল উদ্দিন, খুলনা বিভাগ হোসেন আলী খোন্দকার।
এছাড়া জামালপুর জেলার দায়িত্বে যুগ্ম সচিব বেগম নিলুফার নাজনীন, ব্রাক্ষণবাড়িয়া ও হবিগঞ্জ মো. অলিউল্লাহ, ঝালকাঠি ও ভোলা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, চট্টগ্রাম ও রাঙ্গামাটি ডা. এ এম পারভেজ রহিম, গোপালগঞ্জ ও শরীয়তপুর এস এম আলম, সিরাজগঞ্জ ও খাগড়াছড়ি মো. সাইফুল্লাহিল আজম, গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম ড. মো. এনামুল হক, রংপুর ও দিনাজপুর মনোজ কুমার রায়, ঠাকুরগাও ও জয়পুরহাট সাবিনা আলম, নাটোর ও রাজবাড়ি বেগম উম্মে সালমা তানজিয়া, নেত্রকোন ও ফেনী মো. মজিবুর রহমান, নড়াইল ও বাগেরহাট মো. আলমগীর হোসাইন। কুমিল্লা জেলার দায়িত্বে রয়েছেন উপসচিব ডা. মো. শিব্বির আহমেদ ওসমানী, ঝিনাইদহ ও চুয়াডাঙ্গা বেগম রোকেয়া বেগম, মাদারীপুর ও সুনামগঞ্জ মো. রফিকুল ইসলাম, কক্সবাজার মু জসীম উদ্দীন খান, পিরোজপুর ও রাজশাহী মিনা মাসুদ উজ্জামান খান, মানিকগঞ্জ ও বান্দরবান ড. বিলকিস বেগম, পঞ্চগড় ও নীলফামারী মো. আবু রায়হান মিয়া, বরগুনা ও মুন্সিগঞ্জ মো. আবদুস ছালাম, সিলেট ও পটুয়াখালী বেগম জাকিয়া পারভিন, ফরিদপুর ও মাগুরা বেগম আনজুমান আরা, নেয়াখালী ও চাদপুর মোহাম্মদ রোকন উদ্দিন, কুষ্টিয়া ও পাবনা খন্দকার জাকির হোসেন, ময়মনসিংহ ও লক্ষিপুর মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, মৌলভিবাজার মো. রিয়াজুল হক, বরিশাল ও নারায়নগঞ্জ কামরুল হাসান, টাঙ্গাইল ও শেরপুর এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, লালমনিরহাট ও মেহেরপুর মো. সাদেকুল ইসলাম, গাজীপুর ও নরসীংদী মুহাম্মদ শাহাদাত খন্দকার, চাপাইনবাবগঞ্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, সাতক্ষীরা বেগম উম্মে হাবিবা, কিশোরগঞ্জ মো. শাহদত হোসেন কবির, ঢাকা বেগম শায়লা শার্মিন জামান, নওগা বেগম নুরূন নাহার, খুলনা ও যশোর মোছা. সুস্মিতা ইসলাম।

কৃতজ্ঞতা

dailyinqilab

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *