রাষ্ট্রীয় অব্যবস্থাপনার ফলে সংকটে চামড়া শিল্প -ইশা ছাত্র আন্দোলন খুলনা

এফ এম বুরহান,

দেশের সমৃদ্ধি অর্জনে চামড়া শিল্প রক্ষায় সকল সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিয়ে চামড়া শিল্পকে বাঁচানোর দাবিতে আজ ১৮জুলাই“২১ রোজ রবিবার বিকাল ৪.০০ টায় পাওয়ার হাউজ মোড়স্থ নগর কার্যালয়ের সামনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন খুলনা মহানগর ও জেলার উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরের সেক্রেটারি সাবেক ছাত্রনেতা শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন।

তিনি বলেন, সরকার চামড়া শিল্পকে যথাযথভাবে গুরুত্ব দিয়ে সিন্ডিকেট মুক্ত ও কার্যকারী ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে চামড়া শিল্পখাতকে অপার সম্ভাবনাময়ী হিসাবে তৈরি করতে পারে কিন্তু সরকারের দায়িত্বহীন কর্মকান্ড এবং অব্যবস্থাপনার ফলে চামড়া শিল্প আজ চরম সংকটের মুখে। অবিলম্বে চামড়াসহ দেশীয় শিল্প খাত রক্ষায় সরকারকে কার্যকারী ভূমিকা পালন করতে হবে।

সংগঠনের খুলনা জেলা সভাপতি মুহাম্মদ নাজমুস সাকিবের সভাপতিত্বে ও খুলনা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইব্রাহিম ইসলাম আবীরের সঞ্চালনায় আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বৈশ্বিক করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে রপ্তানী আয় কমে গিয়ে ৭৯৭ দশমিক ৬১ মিলিয়ন ডলারে দাঁড়ায়। রপ্তানী আয়ের দিক থেকে ২য় স্থান হাড়িয়ে চামড়া খাত ৩য় স্থানে নেমে এসেছে।

উল্লেখ্য, ব্যবসা হিসাবে এদেশে চামড়া শিল্পের যাত্রা শুরু হয়েছে বিগত শতাব্দির ৪০এর দশকে। ১৯৪০সালে ব্যবসায়ী আর পি সাহা সর্বপ্রথম নারয়ণগঞ্জে একটি ট্যানারী প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৫১সালের অক্টোবরে তৎকালীন সরকার ঘোষিত এক গেজেটের মাধ্যমে ঢাকার হাজারীবাগে ট্যানারী শিল্প স্থাপিত হয়। সেখান থেকে অদ্যবধি পর্যন্ত চামড়া শিল্পখাতে ব্যাপক সফলতার সাথে অন্যতম একটি শিল্পখাত হিসাবে ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে। এ খাত থেকে রেকর্ড পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে আসছে।

তবে দেশের চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণ ও পণ্য উৎপাদনে পরিবেশ সম্মত কমপ্লায়েন্স না থাকায় আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশের চামড়াজাত পণ্যের চাহিদা কখনো আশানুরূপ হয়নি। ২০১৭ সালের পর থেকে চামড়া খাতের চলমান অগ্রযাত্রায় ভাটা পড়তে থাকে।

মানবন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন খুলনা মহানগর সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ মইনুল ইসলাম, জেলা সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান,জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ফরহাদ মোল্লা, জেলা প্রশিক্ষণ সম্পাদক আবু রায়হান, নগর প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাহদী হাসান মুন্না, জেলা দপ্তর ও প্রকাশনা সম্পাদক রাসেল মৃধা সহ নগর ও থানা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *